1. fauzursabit135@gmail.com : S Sabit : S Sabit
  2. sizulislam7@gmail.com : sizul islam : sizul islam
  3. mridha841@gmail.com : Sohel Khan : Sohel Khan
  4. multicare.net@gmail.com : অদেখা বিশ্ব :
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশ যুব ছায়া সংসদের রাজশাহী বিভাগীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হল বগুড়ায়

বগুড়া প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২৩
বাংলাদেশ যুব ছায়া সংসদের রাজশাহী বিভাগীয় অধিবেশনে অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া ৬ আসনের এমপি রাগেবুল আহসান রিপু। ছবি- অদেখা বিশ্ব

আজ ১৪ অক্টোবর ২০২৩ শনিবার বগুড়ার সরকারি আজিজুল হক কলেজের শিক্ষক মিলনায়তনে রাজশাহী বিভাগীয় যুব ছায়া সংসদ অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিকশিত বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন এর যুব প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ যুব ছায়া সংসদ ও কলেজের বিতর্ক চর্চার সংগঠন পুন্ড্র ডিবেটিং ক্লাব অধিবেশনটি আয়োজন করে।” বরেন্দ্র অঞ্চলে পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্য ব্যবস্থাপনায় যুব অংশগ্রহণ ” প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর আয়োজিত এই অধিবেশনে রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত ৩৯টি সংসদীয় আসন এবং ৯টি সংরক্ষিত মহিলা আসনে যুব ছায়া সংসদ সদস্যরা প্রতিনিধিত্ব করেন।
অধিবেশন উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পুন্ড্র ডিবেটিং ক্লাবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: শাহজাহান আলী। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য সাহাদারা মান্নান শিল্পী, বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপু, বগুড়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম তালুকদার, সদর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মনিরুল হক, সরকারি আজিজুল হক কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. সবুর উদ্দিন, শিক্ষক পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ড. গাজী তৌহিদুল আলম চৌধুরী, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী সম্পাদক গোলাম মোস্তফা চৌধুরী, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আতিকুল আলম, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোস্তফা কামাল সরকার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন পুন্ড্র ডিবেটিং ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও নাট্যকর্মী সিজুল ইসলাম।

বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য সাহাদারা মান্নান শিল্পী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন এক ইঞ্চি জমিও যেন আমরা ফেলে না রাখি। আমাদের শিক্ষিত লোকের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে তারা বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে যোগ দিচ্ছে সেকারণে কৃষিতে শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। এজন্য সরকার কৃষি যন্ত্রপাতিতে প্রণোদনা বৃদ্ধি করেছে। যার কারণে এখন কৃষক খুব সহজে প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসার আগেই ফসল ঘরে তুলতে পারেন। খাদ্য অপচয় রোধ, পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে যুব ক্ষমতায়নে অগ্রাধিকার দেয়া সময়ের দাবী।

বগুড়া-৬ আসনের সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপু বলেন, খাদ্য নিরাপত্তায় আমরা নিজেদের সক্ষমতা অর্জনে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছি জন্য অনেক দেশ আমাদের প্রতি ঈর্ষাণিত হচ্ছেন। পৃথিবীর কোন দেশে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা ছাড়া দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব নয়, এজন্য তাদের সহযোগিতা প্রয়োজন। আমাদের সমস্যা বাড়ছে সত্যিই কিন্তু সেগুলোর সমাধানেও সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিচ্ছে। আপনারা যুবকরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতিয়ার হিসেবে দেশটাকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে অবদান রাখবেন বলে এটি আমি বিশ^াস করি।

বগুড়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম তালুকদার বলেন, আমি সরকারকে বলবো দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করুন। মানুষের নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে। সিন্ডিকেট ভাঙতে হবে নইলে বাণিজ্যমন্ত্রী দায়িত্বে আছেন কেন? নিম্ন আয়ের মানুষ ঠিকমত খেতে পারছেনা, অনেকে মাংস চোখেই দেখছে না, ইলিশ মাছ কিনতে পারেনা। এক মণ ধান বিক্রি করে এক কেজি খাসির মাংস কিনতে হয়। সরকার চাইলেই দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। সেইসাথে যুবকদের আহবান করছি আসুন সবাই মিলে সরকারকে সহযোগিতা করি যাতে দেশটাকে স্মার্ট বাংলাদেশে পরিণত করা যায়।

এর আগে যুব সংসদ ছায়া সদস্যরা তাদের বক্তব্যে রাজশাহী বিভাগের জন্য কিছু সুপারিশ তুলে ধরেন। সুপারিশগুলো হলোঃ

১) চরাঞ্চলের কৃষকের কল্যাণে কৃষি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান যেমন কৃষি ব্যাংকের শাখা স্থাপন করা প্রয়োজন।
২) দুর্যোগকালীন সময়ে পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্যের মজুদ রাখতে হবে।
৩) অপরিকল্পিত, অনুমোদনহীন ও অবৈধ ইটভাটা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।
৪) সরকার নির্ধারিত মূল্যের অতিরিক্ত দামে দ্রব্যমূল্য বিক্রয় রোধে যুব সমাজকে জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করতে হবে।
৫) ক্ষতিকর কীটনাশক প্রয়োগ বন্ধে যুব সমাজকে সাথে নিয়ে স্থানীয় কৃষকদের সচেতন করা।
৬) শিল্প কারখানা থেকে নির্গত ধোঁয়া পরিশোধনে বাধ্যতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা ও এসংক্রান্ত সচেতনতা সৃষ্টিতে যুব অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।
৭) কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে সরকারি উদ্যোগে কৃষকদের নিয়ে কৃষক বাজার স্থাপন।
৮) কৃষকের মানসিক স্বাস্থ্য উন্নয়নে প্রতিটি কমিউনিটি ক্লিনিকে একজন কাউন্সিলর নিয়োগ দেয়া।
৯) কৃষি জমি সংরক্ষণ সংক্রান্ত আইনের কঠোর প্রয়োগ নিশ্চিত করা ও যুবদের সাথে নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা।
১০) পরিবেশ সংরক্ষণের স্বার্থে অনুমোদনহীন শিল্পকারখানার বিরুদ্ধে শাস্তি আরও কঠোর করা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

Theme Customized BY LatestNews